সর্বশেষ

‘চেইন মাইগ্রেশন’ বা পারিবারিক ভিসা নিষিদ্ধ করতে চান ট্রাম্প।

জানুয়ারি ৬, ২০১৮

অনলাইন ডেস্ক :  চেইন মাইগ্রেশন’ বা পারিবারিক ভিসা-প্রক্রিয়াকে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে মনে করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ জন্য এ ধরনের ভিসা প্রদান নিষিদ্ধ করার জন্য কংগ্রেসের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ ধরনের কোনো আইন হয়নি। তা সত্ত্বেও ২০১৭ সালের পারিবারিক ভিসা অনুমোদন বিগত ১০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম। সম্প্রতি ইউএস সিটিজেনশিপ অ্যান্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিসেসের (ইউএসসিআইএস) নথি রয়টার্সের হাতে এসেছে। এর ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, অবৈধ অভিবাসন-প্রক্রিয়া ঠেকাতে ট্রাম্প প্রশাসন মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল তৈরি করার আহ্বানসহ দেশটিতে অবৈধভাবে বসবাসকারীদের ধরপাকড় করা বাড়িয়েছে। সবশেষ আমেরিকার নিউইয়র্ক শহরের ব্যস্ততম বাস টার্মিনালে ‘সন্ত্রাসী আক্রমণের চেষ্টা’র অভিযোগে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আকায়েদ উল্লাহ নামে এক বাংলাদেশি অভিবাসীকে গ্রেপ্তারের পর পারিবারিক ভিসা কমিয়ে আনার কথা বলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। উল্লেখ্য, আকায়েদ উল্লাহ পারিবারিক ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে যান।

কিন্তু অভিবাসন-প্রক্রিয়ার পক্ষে যাঁরা, তাঁদের মত হলো, আত্মীয় যুক্তরাষ্ট্রে থাকলেই কেউ ভিসা পেয়ে যান না। নিরাপত্তার বিষয়টির দীর্ঘ মূল্যায়ন শেষে কয়েক বছর অপেক্ষার পরই ভিসার ‘গ্রিন লাইট’ পাওয়া যায়।

যুক্তরাষ্ট্রে বৈধভাবে বসবাসকারীদের স্বদেশে থাকা ‘বৃহৎ পরিবারের’ সদস্যদের যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাওয়া হলো চেইন মাইগ্রেশন। এই মাইগ্রেশন-প্রক্রিয়াকে নিষিদ্ধ করার জন্য কংগ্রেসে আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ইউএসসিআইএস নথি অনুযায়ী, নিকট পারিবারিক আত্মীয় নন এমন পারিবারিক ভিসা অনুমোদন ২০১৭ সালের প্রথম নয় মাসে আগের বছরের তুলনায় ৭০ শতাংশ কমেছে। আর একই সময়ে বাগ্‌দত্ত বা বাগ্‌দত্তাকে ভিসা প্রদান কমানো হয়েছে ৩৫ শতাংশ।

​Leave a Comment